ঢাকা,শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০

অগ্নিকান্ডে কুতুবদিয়ায় ১০ দোকান পুড়ে গেছে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কুতুবদিয়া ::
দিনের ব্যস্ততা শেষে ব্যবসায়ীরা যখন বাড়ি ফিরে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তখন কয়েলের আগুনে পুড়ে গেছে কুতুবদিয়া উপজেলার লেমশীখালী ইউনিয়নের চৌমুহনী বাজারের আল ফারুক দাখিল মাদ্রাসার ১০ দোকান। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর ) রাত ১২টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

স্থানীয়রা জানান, বাজারের ব্যবসায়ীরা যখন দিন শেষে যে যার মতো দোকান বন্ধ করে বাড়ি চলে যায়। মধ্যরাতে কয়েলের আগুন থেকে উৎপত্তি হয়ে সব পুড়ে যায়। আগুন লাগার পরপরই মুহূর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে নুরুল আমিনের মুদির দোকান, জালালের কাঠের দোকান , হাসান শরীফের মুদির দোকান ,শফি আলমের চায়ের দোকান, নন্টুর লন্ড্রীর দোকান , সেলিমের কাপড়ের দোকান , নাছিরের গবাদিপশুর ওষুধের দোকান , কবিরের চায়ের দোকান , কাঠ মিস্তি পারভেজের দোকান , আগমগীরের চায়ের দোকানসহ ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

খবর পেয়ে স্থানীরা ঘণ্টাখানেক চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও ততক্ষণে সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়ে যায়। কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
এদিকে, খবর পেয়ে ইউএনও জহিরুল হায়াত,উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর, আ’লীগ নেতাকর্মী ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আকতার হোছাইনসহ অনেকেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পাঠকের মতামত: