ঢাকা,মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

বান্দরবানের ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান ছয়টি ইটভাটার মালিককে জরিমানা

বান্দরবান প্রতিনিধি :: বান্দরবান পাবত্য জেলার লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নে ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে । গতকাল সকালে পরিবেশ অধিদপ্তর বান্দরবান জেলা কার্যালয় ও লামা উপজেলা এর যৌথ উদ্যোগে অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে এই ভ্রামমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় অভিযানে ছয়টি ইটভাটার প্রতিনিধিকে পাহাড় কর্তনের দায়ে চার লক্ষ টাকা জরিমানা ধায্য ও আদায় করা হয়। ভ্রামমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রেজা রশীদ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রেজা রশীদ বলেছেন ইটভাটার মালিকগণ অবৈধভাবে পাহাড় কর্তন করেছেন, যা দন্ডনীয় অপরাধ, তাদের সবাইকে বিভিন্ন পরিমাণে জরিমানা করা হয়েছে। এসময় অভিযানে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রেজা রশীদ, পরিবেশ অধিদপ্তর বান্দরবানের সিনিয়র কেমিস্ট এ কে এম ছামিউল আলম কুরসি, জুনিয়র কেমিস্ট মোঃ আব্দুস সালামসহ পুলিশের সদস্য এবং ইটভাটার মালিক ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানে প্রসিকিউটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জুনিয়র কেমিস্ট মোঃ আব্দুস সালাম। পরিবেশ অধিদপ্তর বান্দরবান কার্যালয়ের সিনিয়র কেমিস্ট এ কে এম ছামিউল আলম কুরসি বলেছেন অবৈধ পাথর কর্তন বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ এর ৬খ ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন, তাই অবৈধ পাহাড় কর্তনের বিরুদ্ধে এ রকম অভিযান অব্যাহত থাকবে পরিবেশ অধিদপ্তর বান্দরবান কার্যালয়ের সিনিয়র কেমিস্ট এ কে এম ছামিউল আলম কুরসি আরো বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতের এই অভিযানে পিবিসি ব্রিক্সকে এর মালিক মোঃ সামাদ আলী ১ লক্ষ টাকা ,এবিসি ব্রিক্স মালিক মোঃ জাফর উল্লাহকে ১লক্ষ টাকা, এফবিএম ব্রিক্স এর মালিক মোঃ আমিনুল ইসলামকে ১ লক্ষ,

বিবিএম ব্রিক্স এর মালিক মোঃ ওমর ফারুক ৫০ হাজার টাকা ,এসবিডবিণ্টউ ব্রিক্স মালিক মোঃ ফারুক মিয়াকে ৩০ হাজার, এবং এফএসি ব্রিক্স এর মালিক মোঃ জাফর আলমকে ২০ হাজার সর্বমোট চার লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং তা আদায় করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: