ঢাকা,বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

চকরিয়ায় পত্রিকা হকারদের আবারো খাদ্যসহায়তা দিল শুভসংঘ

ছোটন কান্তি নাথ, চকরিয়া ::
করোনার কবলে পড়ে প্রায় তিনমাস ধরে কর্মহীন হয়ে পরিবার সদস্যদের নিয়ে খাদ্যসংকটে থাকা কক্সবাজারের চকরিয়ার ১৫ জন পত্রিকা বিক্রেতা হকারকে দ্বিতীয়দফায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘ চকরিয়া শাখার পক্ষ থেকে খাদ্যসহায়তা দেওয়া হয়েছে।
আজ শনিবার দুপুরে পৌরশহরের চিরিঙ্গায় প্রত্যেক হকারকে দেওয়া হয়েছে ভাল মানের ১০ কেজি চাল, দুই লিটার তেল, দুই কেজি পেঁয়াজ ও এক কেজি করে মসুর ডাল। শুভসংঘ চকরিয়া থাকার সম্মানিত উপদেষ্টা পরিষদ আহমদ রেজার অর্থায়নে এই খাদ্যসহায়তা পেয়েছে পত্রিকা বিক্রেতা হকারেরা।
প্রসঙ্গত গত ২৬ মার্চ থেকে চকরিয়ায় জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় কোন পত্রিকা আনছেন না পত্রিকার এজেন্টরা। এতে পরিবার সদস্যদের নিয়ে চরম খাদ্যসংকটে পড়েছেন মাঠপর্যায়ে পত্রিকা বিক্রেতা হকারেরা।
এর আগেও করোনা পরিস্থিতিতে সারাদেশে লকডাউন শুরু হলে গত এপ্রিল মাসে শুভসংঘের আরেক সম্মানিত উপদেষ্টা সদস্য যুবনেতা কাউছার উদ্দিন কছিরের পক্ষ থেকে ২০ জন পত্রিকা বিক্রেতা হকারকে খাদ্যসহায়তা দেওয়া হয়েছিল।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘ চকরিয়া উপজেলা শাখার সম্মানিত উপদেষ্টা আহমদ রেজা, শুভসংঘ কেন্দ্রীয় কমিটির জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ও পত্রিকার স্থানীয় প্রতিনিধি ছোটন কান্তি নাথ, শুভসংঘ চকরিয়া উপজেলা শাখার উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য জিয়া উদ্দিন, সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য আবুল মাসরুর আহমদ, ক্রীড়া সম্পাদক সাদ উদ্দিন আল জাবিদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা রিয়াদ উদ্দিন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ, চকরিয়া পৌরসভা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুনীপ দাশ সৌরভ, স্থানীয় ফরিদুল আলম, চকরিয়া হকার সমিতির সভাপতি মনির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ কাঞ্চন হৃদয়, সমিতির নেতা প্রকাশ ধর, মিনার উদ্দিন, আবদুল্লাহসহ উপকারভোগী হকারেরা।
উল্লেখ্য-এর আগেও শুভসংঘের চকরিয়া শাখার সম্মানিত উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আহমদ রেজা করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবী প্রায় ১৫০০ পরিবারে খাদ্যসহায়তা দেন শুভসংঘের পক্ষ থেকে। নিজের অর্থায়নে তিনি পৌরসভার কোচপাড়া এলাকায় ইট বিছিয়ে প্রায় ৩০০ ফুটের একটি সড়ক নির্মাণ করে দেন। যেটি সারাদেশের একমাত্র ‘শুভসংঘ সড়ক’ নামকরণ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: