Home » কক্সবাজার » চকরিয়ায় শতাধিক ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, অটোরিক্সার চার্জ স্টেশনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

চকরিয়ায় শতাধিক ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, অটোরিক্সার চার্জ স্টেশনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া :: করোনার রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করে কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভার পুরো এলাকা এবং ডুলাহাজারা ইউনিয়নে চলছে ১৪ দিনের লকডাউন কর্মসূচি। প্রশাসনের নেওয়া এই লকডাউন কর্মসূচিকে সিংহভাগ সাধারণ মানুষ সমর্থন দিয়ে বাড়িতেই অবস্থান করলেও অসচেতন মানুষ এবং ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, অটোরিক্সা বেরিয়ে পড়েছে পৌরশহরে। এতে লকডাউন কর্মসূচি শতভাগ বাস্তবায়ন করা দুরূহ হয়ে পড়ায় এবার প্রশাসনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে পৌরশহরের ইজিবাইক, অটোরিক্সার ব্যাটারী চার্জস্টেশন তথা শতাধিক গ্যারেজের।

এসব চার্জ স্টেশনের বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড চকরিয়ার আবাসিক প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মো. মঈন উদ্দিন। তিনি জানান, উপজেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১৪ দিনের লকডাউন শতভাগ কার্যকর করতে পৌর এলাকার যেসব চার্জার স্টেশন রয়েছে সেসব স্টেশনের বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কাজ পুরোদমে চলছে। আজকের মধ্যেই সব সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে। উপজেলা প্রশাসন থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত চার্জ স্টেশনে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হবে না।

সরজমিন দেখা গেছে, করোনার রেড জোন চকরিয়া পৌরসভাকে লকডাউনের আওতায় আনা হয় গত ৭ জুন থেকে। কিন্তু ইজিবাইক টমটম, তিন চাকার ব্যাটারিচালিত রিক্সা লকডাউন অমান্য করে যত্রযত্র গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পড়ছে। আর অসচেতন মানুষও এসব যানে চড়ে চকরিয়া পৌরশহর চিরিঙ্গাসহ বিভিন্নস্থানে যাতায়াত করছেন। এতে করোনা আক্রান্তের ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সচেতন জনগণের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা ইজিবাইক টমটম ও ব্যাটারীচালিত রিক্সার চলাচল বন্ধ রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ হিসেবে চার্জার স্টেশনগুলোর বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নেয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলা প্রশাসন কৃর্তক চলাচল নিষিদ্ধ করা ইজিবাইক ও রিঙাগুলো বিদ্যুৎ চালিত। এসব যানবাহন চালাতে হলে চার্জের প্রয়োজন। সেসব যানের চার্জ দিতে পৌরসভায় গড়ে উঠেছে শতাধিক চার্জার স্টেশন তথা গ্যারেজ। চার্জার স্টেশনগুলোর বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার খবরে সচেতন মহলের পক্ষ থেকে সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রশাসনকে। অনেকেই বলেন, ১৪ দিনের লকডাউন কর্মসূচির ইতোমধ্যে তিনদিন পার হয়ে গেছে।

কিন্তু সবকিছুই যেন স্বাভাবিকভাবে চলছে। বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকেও পৌরশহর চিরিঙ্গায় সওদা করতে আসছেন নারী-পুরুষ। তারা আসছেন ইজিবাইক, অটোরিক্সায় চেপে।

এখন চার্জার স্টেশনগুলো বন্ধ থাকলে তা লকডাউন কার্যকরে যথেষ্ট কাজ দেবে। এ ব্যাপারে চকরিয়া উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, সচেতন মহল থেকে উঠা এই দাবির বিষয়টি আমরা পজেটিভলি নিয়েছি।

তাই বিউবোর কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ইজিবাইক চার্জার স্টেশনগুলোর বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিতে। সে মোতাবেক ইতোমধ্যে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কাজ চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ায় শাহ আজমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা দখলের অভিযোগ, উত্তেজনা

It's only fair to share...000 নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পুর্ব ...

৮০ কিমি বেগে ঝড়, উপকূলীয় জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ার শঙ্কা

It's only fair to share...000 নিউজ ডেস্ক :: সুস্পষ্ট লঘুচাপের কারণে উপকূলীয় জেলাগুলোর ওপর দিয়ে ...