ঢাকা,মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

করোনার শিকার চট্টগ্রামের আরও এক ইউএনও

নিউজ ডেস্ক ::  এবার করোনার শিকার হলেন চট্টগ্রামের আরও একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)। মঙ্গলবার (৯ জুন) রাতে চট্টগ্রামের করোনা পরীক্ষার প্রধান ল্যাব বিআইটিআইডি ল্যাবের প্রকাশিত ফলাফলে বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বেগম আছিয়া খাতুনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর আগে রাঙ্গুনিয়ার ইউএনও মাসুদুর রহমান করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বোয়ালখালীর ইউএনও আছিয়া খাতুন ৬ জুন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। গত এক সপ্তাহ ধরে তিনি হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। করোনা পজিটিভ থাকায় এখন তিনি আইসোলেশনে থাকবেন। তবে বর্তমানে তার শরীরে করোনার কোন লক্ষণ নেই বলে জানা গেছে।

করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকতাদের মতো তিনিও মাঠপর্যায়ে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন। বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা, করোনা আক্রান্তদের বাসস্থান লকডাউন করা ছাড়াও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাঁচাবাজার চালুসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ মে সর্বপ্রথম চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুন নাহার এবং ২৪ মে জেলা প্রশাসকের স্টাফ অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদুর রহমান করোনা শিকার হন। এরপর ১ জুন রাঙ্গুনিয়ার ইউএনও মাসুদুর রহমানের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। ৪ জুন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) আবু হাসান সিদ্দিক এবং পতেঙ্গা সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) এহসান মুরাদের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

জানা গেছে, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুন নাহার ও রাঙ্গুনিয়ার ইউএনও মাসুদুর রহমান করোনা মুক্তির পথে আছেন।

পাঠকের মতামত: