ঢাকা,মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

বাইশারীর অস্থায়ী করোনাভাইরাস প্রতিরোধক বাজার প্রধান বাজারে স্থানান্তরে সবার মাঝে স্বস্তি

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি ::
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার জনবহুল এলাকার বাইশারী বাজারটি বিগত ২ মাস যাবত করোনাভাইরাস প্রতিরোধক এর লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বাইশারী কলেজ মাঠে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল।
কিন্তু গত ১ মাস যাবত বর্ষার আগাম বৃষ্টি ও কাল বৈশাখী ঝড়ো হাওয়ায় খোলা আকাশের নিচে নিজেদের তৈরী ঝুপড়ি ঘরে সব কিছু ভিজে বৃষ্টিতে লন্ডবন্ড হয়ে যাওয়ার খবরটি জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিক এবং অনলাইনে নিউজ পোর্টালে গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হলে উপজেলার সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সু নজরে আসে। পরে উপজেলার সংশ্লিষ্ট প্রশাসন বৃহস্পতিবার অস্থায়ী করোনাভাইরাস প্রতিরোধক বাজার সেই আগের পুরাতন বাজারে স্থানান্তর করার নির্দেশ প্রদান করেন স্থানীয় চেয়ারম্যান ও বাজার সভাপতিকে।
গতকাল বৃহস্পতিবার (৪ জুন) উপজেলা নির্বাহী অফিসার ব্যবসায়ীদের ক্ষতির কথা মাথায় রেখে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আগের স্থানে ফেরত আাসর নির্দেশ প্রদান করেন।
ব্যবসায়ী ফরিদুল আলম, মনু মিয়া, নুরুল কাদের সহ অনেকেই জানান এই আগাম বর্ষায় তাদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। একদিকে করোনাভাইরাস এর কারণে পরিবহন ভাড়া দ্বিগুণ গুণতে হয়েছে ।
অন্যদিকে দৈনিক অনেক মালামাল বৃষ্টিতে নষ্ট সহ বিশাল ক্ষতি হয়েছে। বাজারটি আগের জায়গায় ফেরত আনাতে আল্লাহর কাছে শুকুরিয়া আদায় করছি। পাশাপাশি আমাদের মাঝে সস্তি ফিরে এসেছে।
বাজার সভাপতি ও আওয়ামীলীগ সভাপতি জাহাংগীর আলম বাহাদুর বলেন , সরকারী নির্দেশনায় বাজার স্থানীয় কলেজ মাঠে নেয়া হয়েছিল। আবার সেটি সরকারী নিের্দশনায় পুরাতন জায়গায় ফেরত আসছে। আইন অনুযায়ী সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ক্রেতা ও বিক্রেতারা বাজার সদাই করবেন। এর ব্যতিক্রম হলে ছাড় নেই।
ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলম বলেন উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশ মোতাবেক বাজার আগের জায়গায় ফেরত আনা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: