Home » কক্সবাজার » ঈদগাঁওর সবখানে করোনা আতংক !

ঈদগাঁওর সবখানে করোনা আতংক !

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও ::  বৈশ্বিক চলমান করোনা ভাইরাস আতংক কাটছেনা ঈদগাঁওবাসীর মাঝে। বৃহত্তর এলাকাজুড়ে চিকিৎসক,ব্যবসায়ীসহ বেশ কজনের করোনা পজেটিভ আসায় আতংকে রয়েছেন মানুষজন। এমনকি অনেকে ভয়ে ঘর থেকে সহজে বের হচ্ছেনা। প্রয়োজনীয় কাজকর্ম ছাড়াই সচেতন লোকজনদেরকে বাহিরে তেমন দেখাই যাচ্ছেনা।

তবে নিরাপদে অবস্থান,অপ্রয়োজনে বাড়ী থেকে বের না হওয়া আর সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য বলা হলেও এসবকে তোয়াক্কা করছেনা গ্রামীন জনপদের লোকজন। জমায়েত ঠেকানো যাচ্ছেনা। বিকেল থেকে সন্ধ্যা হয়ে রাত পর্যন্ত বাজারসহ বৃহৎ এলাকার পাড়া মহল্লা জুড়ে আড্ডাবাজি থামছেনা।

করোনা ভাইরাস সবখানে ছড়িয়ে পড়ার পরও পাড়া মহল্লায় এখনো অনেক দোকানপাঠে জড়ো হয়ে খোশগল্পে মেতে উঠেন অসচেতন লোকজন। এসব দেখার যেন কেউ নেই। বাজারের পাশাপাশি গ্রামে গঞ্জে আড্ডাবাজি বা জমায়েত ঠেকাতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। যতক্ষন অভিযান চলে ততক্ষন লোকজনরা গা ঢাকা দেয়। পরক্ষনে আবারো একই কায়দায় পরিণত হয়ে পড়ে। বারবার তারা অক্ষতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন।

সচেতন লোকজন জানান,যদি গ্রামীন জনপদে জমায়েত বন্ধ কিংবা সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা না যায়, করোনা সংক্রমন কিছুতেই ঠেকানো সম্ভব নয়। করোনার থাবা থেকে রক্ষা পেতে লোকজনকে সচেতন হতে হবে। নইলেই বিপদ আসন্ন। সবখানেই আতংক বিরাজ করছে।

জেলা সদরের বৃহত্তর ঈদগাঁওর বিভিন্ন স্থানে এই পর্যন্ত বেশ কজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রতিদিন জেলায় করোনা পরীক্ষায় সদরে কমবেশি রোগী শনাক্ত হচ্ছে। এই আতংক কাটছেনা তাদের মাঝে। আক্রান্তদের বাড়ী বা প্রতিষ্টানও লকডাউন করা হয়। তবে লোকজন বর্তমান সময়েই নিরাপদে গৃহবন্দিতে দিনপার করছেন। রাজনীতিবীদ,সচেতন ব্যবসায়ীরা এখন বাড়ীতে। ভয়ে কিংবা দুরত্বে থাকতে বাজারে বা জনসম্মুখে আসছেন না অনেকে।

শামসুল আলম ও আজিমরা জানিয়েছেন, চলমান সময়ে করোনার থাবা থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পেতে নিরাপদে ঘরবাড়ীতে অবস্থান,
সামাজিক বা শারিরীক দুরত্ব বজায়, আড্ডা থেকে নিজে বা পরিবার পরিজনকে বিরত রাখতে হবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

উল্লেখ্য যে, গত ২৪ মার্চ থেকে ঈদগাঁও বাজারে করোনা আতংকে দোকানপাঠ বন্ধ ঘোষনা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ায় শাহ আজমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা দখলের অভিযোগ, উত্তেজনা

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পুর্ব সুরাজপুরস্থ ...

চুরি- ছিনতাই হওয়া মোবাইল মিলছে অভিজাত শো রুমে!

It's only fair to share...000 নিউজ ডেস্ক ::  চুরি ও ছিনতাই হওয়া মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন ...