ঢাকা,রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

‘পাগলিটা মা হয়েছে, বাবা হয়নি কেউ’

নিজস্ব প্রতিবেদক ::  ফুটফুটে নিস্পাপ ছেলে শিশুটি হাসছে মিটিমিটি। রোববার (৮ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টায় তার জন্ম। শিশুটি জন্ম নিয়েছে রাস্তার ধারে এক দোকানের সামনে, তাও এক পাগলির গর্ভে।

রাতের আঁধারে সন্তান সম্ভবা এক পাগলি মায়ের প্রসব বেদনার গগনবিদারী চিৎকার ভারি করে তুলছিল চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার পশ্চিমচাল কবিরার এলাকায় জনপদ। এমন একটি রাতে নির্জন জায়গা থেকে চিৎকারের শব্দ শুনে শব্দকে গন্তব্য করে ছুটে গিয়েছিলেন কিছু মহৎ কিশোর ও নারী।

সেদিন রাতের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে স্থানীয় মোহাম্মদ ইলিয়াছ চকরিয়া নিউজকে বলেন, মানসিক অসুস্থ অবস্থায় বাজারের বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাঘুরি করতো এ পাগলি। তার চিৎকার শুনে রোববার রাতে স্থানীয় নারী, কয়েকজন যুবক নবজাতকসহ তাকে রাতেই উদ্ধার করে বাড়িতে আশ্রয় দেন।

তিনি বলেন, বুঝতে পারছি না, সাহায্যকারীদের কথা ভেবে গর্ববোধ করব, নাকি পাগলিটাকে মা বানিয়ে দেয়া পিশাচটার কথা ভেবে লজ্জিত হব। আমরা ডাক্তার এনে তাদের দেখিয়েছি বর্তমানে মা ও শিশু দুজনেই সুস্থ আছেন।

এদিকে, মানসিক ভারসাম্যহীন এই নারীর মা হবার ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। যা নাড়া দিয়েছে অনেককেই। লালসার শিকার হওয়া ওই নারীর সন্তান জন্ম দেয়ার মুহূর্তে পাশে দাঁড়ানো কিছু কিশোর ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘পাগলিটা মা হয়েছে, বাবা হয়নি কেউ’।

পাঠকের মতামত: