Home » কক্সবাজার » চকরিয়ায় এলজিইডির অর্থায়নে দুইটি সড়কের মেরামত কাজের উদ্বোধন

চকরিয়ায় এলজিইডির অর্থায়নে দুইটি সড়কের মেরামত কাজের উদ্বোধন

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  চকরিয়া উপজেলা এলজিইডির অর্থায়নে উপজেলার গুরুত্বপুর্ণ জনপদের দুইটি সড়কের মেরামত কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার (২৪ নভেম্বর) বিকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সড়ক দুইটির মেরামত কাজ উদ্বোধন করেছেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম।

এদিন বিকালে প্রথমে উদ্বোধন করেন কৈয়ারবিল ইউনিয়নের কৈয়ারবিল নতুন মসজিদ সড়ক উন্নয়ন কাজের। এসময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী কমল কান্তি পাল, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান ও কৈয়ারবিল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমদ চৌধুরী।

একইদিন সন্ধ্যায় উদ্বোধন করেছেন হাজিয়ান জিপিএস-মধ্য লোটনী কাকারা সংযোগ সড়ক (শিকলঘাট আরএইচডি, হাজিয়ান, কাকারা ইউপি সংযোগ সড়ক) বিসি দ্বারা উন্নয়ন কাজ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এমপি জাফর আলমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- চকরিয়া উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী কমল কান্তি পাল, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তাফা কাইছার, কাকারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মের্সাস শামীম এন্টারপ্রাইজের মালিক শওকত ওসমান, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক আবু মুছা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এমপি আলহাজ জাফর আলম জনগণের উদ্দেশ্যে বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষনা দিয়েছেন, আগামী পাঁচবছরে পরিকল্পিত উন্নয়নে দেশের প্রতিটি মফস্বল এলাকার গ্রামকে শহরে পরিণত করা হবে। শহরের সুবিধা গ্রামে নিশ্চিত করা হবে। সেই আলোকে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে উন্নয়নে গ্রামে শহরের সুবিধার আওতায় আনতে কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। আজ পেকুয়া উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের গ্রামীণ জনপদে ৫ কোটি টাকা বরাদ্দে নতুন সড়ক নির্মাণ কাজের সুচনা করা হয়েছে। এই ধারা আগামীতে দুই উপজেলার প্রতিটি অঞ্চলে পৌঁছে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী চকরিয়া-পেকুয়া অঞ্চলে ইকোনমিক জোন গড়ে তোলা হবে। উন্নয়নের ক্ষেত্রে দুই উপজেলাকে সমান অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আগামী পাঁচবছরে চকরিয়া-পেকুয়ার প্রতিটি জনপদ হবে দৃশ্যমান উন্নয়নের নগরী, সুফল পাবেন জনগন। সরকার প্রধানের সার্বিক সহযোগিতায় পরিকল্পিত উন্নয়নে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলাকে মডেল টাউনে পরিণত করতে চাই। সেইজন্য সকলস্তরের জনসাধারণের সহযোগিতা চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

‘৯ কোটি টাকা আত্মসাৎ’ চট্টগ্রামের সাবেক সিভিল সার্জন সরফরাজ কারাগারে

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক :: বাড়তি দামে যন্ত্রপাতি কিনে নয় কোটি টাকার বেশি ...

error: Content is protected !!