Home » কক্সবাজার » কুমিল্লা সদরের এসিল্যান্ড রামুর তাসলিমুন নেছা

কুমিল্লা সদরের এসিল্যান্ড রামুর তাসলিমুন নেছা

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সোয়েব সাঈদ, রামু ::   চট্টগ্রাম বিভাগের কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার সহকারি কমিশনার ভূমি হিসেবে যোগদান করেছেন রামুর মেয়ে তাসলিমুন নেছা। গতকাল বুধবার (৩০ অক্টোবর) সকালে তিনি যোগদানের জন্য কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের দপ্তরে যান। এসময় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক বাদল ফজল মীর ফুল দিয়ে তাঁকে বরণ করেন। তাসলিমুন নেছা ইতিপূর্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

তাসলিমুন নেছা কক্সবাজারের রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার মরহুম মনির আহামদের মেয়ে। ২ ভাই ৫ বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তাঁর স্বামী তারিক হোসেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। তাঁর বড় ভাই আব্দুল মান্নান কক্সবাজার জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক এবং বাংলাদেশ জেলা পরিষদ হিসাব রক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক। মেঝ ভাই কামাল হোসেন শিশুসাহিত্য নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এবং দৈনিক ভোরের কাগজের রামু প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

তাসলিমুন নেছা মনিরঝিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য নিয়ে কৃতিত্বের সাথে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ৩৪তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়ে ২০১৭ সালে ৮ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেন। যোগদান পরবর্তি তিনি বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (বার্ড) এ অনুষ্ঠিত ৬ মাসের বিসিএস ক্যাডারদের বিএ-৬৪তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সে ৩য় স্থান অধিকার করে ‘ক্রেষ্ট অব অনার’ অর্জন করেন। পরে শাহবাগ প্রশাসন একাডেমিতে অনুষ্ঠিত ৬ মাসের আইন ও প্রশাসন কোর্সে অংশ নিয়ে ১১১ তম ব্যাচ থেকে ১১ তম স্থান আর্জন করেন।সবশেষে বুধবার তিনি কুমিল্লা সদর দক্ষিণের সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিসেবে নিযুক্ত হলেন।

জানতে চাইলে তাসলিমুন নেছা বলেন, এ আনন্দক্ষণে তিনি তাঁর গর্ভধারিনী মা এবং বাবাকে খুব মিস করছেন। কারণ এ সফলতা দেখার আগেই তাঁরা (মা-বাবা) ইন্তেকাল করেছেন। তিনি এ অর্জনের জন্য মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছেন। কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন, বড় ভাই আব্দুল মান্নানের প্রতি। যার সহযোগিতা না পেলে এপর্যায়ে আসা তাঁর পক্ষে সম্ভব হতোনা। পাশাপাশি যারা এতদূর আসার পেছনে যারা প্রেরনা, সাহস যুগিয়েছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। দেশ এবং মানুষের কল্যাণে কাজ করতে তিনি সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বান্দরবানে বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে বন্যহাতি হত্যা

It's only fair to share...000বান্দরবান প্রতিনিধি :: বান্দরবানের লামায় বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে একটি বন্যহাতিকে হত্যা ...

error: Content is protected !!