Home » কক্সবাজার » কুতুবদিয়ায় পেঁয়াজ বাজারে আগুন! ১২০ টাকা কেজি, সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীরা মানছে না প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

কুতুবদিয়ায় পেঁয়াজ বাজারে আগুন! ১২০ টাকা কেজি, সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীরা মানছে না প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

আবু আব্বাস সিদ্দিকী, কুতুবদিয়া কক্সবাজার ::
কুতুবদিয়ায় প্রধান প্রধান বাজারগুলোতে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১০০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বিক্রেতেরা সহজ সরল ক্রেতাদের নিকট মোটাংকের লভ্যাংশ হাতিয়ে নিচ্ছে। যেন মনে হচ্ছে পেঁয়াজের বাজারে আগুন লাগছে। সম্প্রতি ভারত কোন কারন দর্শনো ছাড়া পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় বাংলাদেশে পেঁয়াজের সংকট দেখা দেয়। এ ফাঁকে ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে মজুদ করে রাখে গোডাউনে। যার কারনে ২৫ টাকার মূল্যের পেঁয়াজ বর্তমান বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকায়। প্রশাসন এসব সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করায় দেশে অনেকাংশে পেঁয়াজের দাম কমে গেলেও কুতুবদিয়ায় বাজার গুলোতে কমে নি পেঁয়াজের দাম।গতকাল সরেজমিনে উপজেলার বড়ঘোপ বাজার, ধূরুং বাজার, চৌমুহনী বাজার,  শান্তি বাজার, তবলরচর বাজারে পরিদর্শনে গেলে পেঁয়াজ বিক্রির বিষয়টি চোখে পড়ার মত। বড়ঘোপ বাজারের ক্রেতা নাছির উদ্দীন জানায়, দেশে বিভিন্ন জায়গায় প্রশাসন সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের জরিমানা করায় পেঁয়াজের মূল্য বহুলাংশে কমে গেলেও কমেনি কুতুবদিয়ার বাজার গুলোতে। প্রতিটি দোকানে ১০০ থেকে ১২০ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। এতে করে ক্ষতি হচ্ছে সাধারণ ক্রেতাদের। ধূরুং বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা আসমা খাতুন জানায়, একশত টাকা নিয়ে বাজারে এসে মাছ কিনব না পেঁয়াজ কিনব তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছি। এক সপ্তাহে আগে যে পেঁয়াজের মূল্য ছিল ২৫ টাকা, এখন তা বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। শেষমেশ ৭০ টাকার মাছ কিনার পর বাকী ৩০ টাকা দিয়ে এক পোয়া পেঁয়াজ কিনলাম। এরকম চলতে থাকলে আমাদের মত সাধারণ জনগন রাধুনির গুরুত্বপূর্ণ মসলার পেঁয়াজটির রান্নার তালিকা থেকে বাদ পড়বে। বড়ঘোপ বাজারে নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক  খুচরা ব্যবসায়ী জানায়, পাইকারি ব্যবসায়ী আবুল কাসেম আমাদের নিকট প্রতি কেজি পেঁয়াজের মূল্য ৯০ টাকা দরে ধরেছেন। যার কারনে আমাদের ১০০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে। একই রকম কথা স্বীকার করেছেন বাজারের অন্য অন্য খুচরা৷ ব্যবসায়ীরা। ধূরুং বাজারে পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মানিক জানায়, আড়াৎতে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় খুচরা বাজারে পেঁয়াজের মূল্য ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। ধূরুং বাজারে আমার দোকানে ৮০ টাকায় বিক্রি করতেছি।
ধূরুং বাজারে খুচরা ব্যবসায়ী আক্কাস,  কামরুল জানায়, সম্প্রতি পাইকারি আড়াৎ দারেরা পেঁয়াজের মূল্য ব্যাপক হারে বৃদ্ধি করায় আমাদের খুচরা বাজারে প্রভাব পড়ে। যার কারনে আমাদের প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১০০ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে।
এদিকে এলাকার সচেতন মহল কুতুবদিয়ায় প্রধান প্রধান বাজার গুলোতে সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে পেঁয়াজের মূল্য সর্বনিম্ন নির্ধারন করার জন্য প্রশাসনের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এব্যাপারে কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউর হক মীর জানায়, উপজেলার প্রধান প্রধান বাজার গুলোতে যেসব সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ মজুদ রেখে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করছে তাদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে। অনেক সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের জরিমানা করা হয়েছে। আগামীকাল থেকে পেঁয়াজের বেশি দামে বিক্রি করলে পুনরায় মোবাইল কোর্ট এর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

‘অবৈধ উপায়ে নির্বাচনে জয়ীদের কোনো বৈধতা থাকে না’

It's only fair to share...000অনলাইন ডেস্ক :: যেসব জনপ্রতিনিধি অবৈধ উপায়ে বা দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে ...

error: Content is protected !!