ঢাকা,শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০

চকরিয়ায় বন্যা ও পাহাড়ি ঢলে ভেসে গেছে ৫৬ কোটি টাকার মাছ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  চকরিয়ায় টানা ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে ভেসে গেছে ৫৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা মুল্যেও মাছ। লবণাক্ত ও মিষ্টি পানিতে চাষ করা এ মাছ ভেসে যাওয়ায় ২ হাজার ২২০ জন মৎস্য চাষী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বুধবার সকালে বিআরডিবি সম্মেলন কক্ষে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্টান পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য উত্থাপন করেন চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম।

মৎস্য কর্মকর্তা জানান,২ হাজার ৮৩০টি পুকুর থেকে ৫’শ ৩৭টন মাছ ভেসে গিয়ে ১৩ কোটি ৪৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা, ২’শ ৫০টি বাণিজ্যিক খামার থেকে ৮’শ ৮৫ টন মাছ ভেসে গিয়ে ২২ কোটি ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ৮’শ ২৮টি চিংড়ি খামার থেকে ২৯৩ টন চিংড়ি মাছ ভেসে গিয়ে ১৯কোটি ৭৬ লাখ ৪২ হাজার ৫৪২ টাকা, অন্যান্য ২৫টি খামার থেকে ৭৩ টন মাছ ভেসে গিয়ে ৮৪ লাখ ৫২ হাজার ৫’শ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, টানা ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে ২ হাজার ২২০জন মৎস্য চাষীর প্রায় ৫৬ কোটি ১৬ লাখ ৭০ হাজার ৪২ টাকার মাছ ভেসে গেছে।

তিনি আরো বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত এসব চাষীদের তালিকা ইতিমধ্যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করা হবে।
সংবাদ সম্মেলনের পূর্বে “মৎস্য সেক্টরের সমৃদ্ধি সুনীল অর্থনীতির অগ্রগতি” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৯ পালন উপলক্ষে আলাচনা সভা অনুষ্টিত হয়। পরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার বিআরডিবি হল রুমে সপ্তাহব্যাপী মৎস্য সপ্তাহ পালন উপলক্ষে এ আয়োজন করেন চকরিয়া উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর।
সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের মৎস্য সপ্তাহের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম।

তিনি সপ্তাহ ব্যাপী কর্মসুচির মধ্যে রয়েছে র‌্যালী, মাছের পোনা অবমুক্তকরণ, মৎস্য সেক্টরের অগ্রগতি, মৎস্য চাষ বিষয়ে বিভিন্ন স্কুল কলেজে আলোচনা এবং পুরস্কার বিতরণসহ নানা আয়োজনের কথা তুলে ধরেন।
এতে আরো বক্তব্য রাখেন- উপজেলা মৎস্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান,ক্ষেত্র সহকারী সায়েফ উল্লাহ, দুলাল কান্তি দে। এসময় উপস্থিত ছিলেন- চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিজবাউল হক, সহ-সভাপতি মো. রফিক আহমদসহ সাংবাদিকরা।

পাঠকের মতামত: