Home » কক্সবাজার » পেকুয়া-কুতুবদিয়া লঞ্চঘাটে যাত্রী হয়রানী, অতিরিক্ত যাত্রীবহন ও টাকা আদায়ে শংকিত সবাই

পেকুয়া-কুতুবদিয়া লঞ্চঘাটে যাত্রী হয়রানী, অতিরিক্ত যাত্রীবহন ও টাকা আদায়ে শংকিত সবাই

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

পেকুয়া প্রতিনিধি ::   পেকুয়ায় মগনামা লঞ্চঘাট থেকে কুতুবদিয়ায় যাত্রী পারাপারে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছেন সংশ্লিষ্ট ইজারাদারগণ। এ ছাড়াও অতিরিক্ত যাত্রীবহনের কারণে শংকিত হয়ে পড়েছে দ উপজেলার হাজার হাজার যাত্রীগন। এমন অভিযোগ করছে দরবার ঘাট ও বড়ঘোপ ঘাট পারাপার করা শতশত যাত্রীরা।

প্রতি জন যাত্রী থেকে নিয়ম অনুযায়ী ২০টাকা করে নেওয়ার কথা থাকলেও নিচ্ছে ৪০ টাকা করে। স্পীট বোটে নেওয়া হচ্ছে জনপ্রতি ২শ টাকা করে। এছাড়াও যাত্রীর সাথে থাকা মালামাল থেকেও দুইগুণ টাকা আদায় করা হচ্ছে। এ রকম নৈরাজ্য সৃষ্টির করায় সাধারণ জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

দরবার ঘাট থেকে আসা রফিক, সুমানা আকতার ও শফিক নামের তিন যাত্রী বলেন, আমরা নিয়মিতভাবে ২০টাকা দিয়ে যাতায়ত করতাম। সাথে মটর সাইকেলে নিত ৪০টাকা ও মালামাল পরিবহন করলে নিত ৩০ টাকা। কিন্তু এখন বোটে পরিবহন বাবদ প্রতিজন থেকে ৪০টাকা, মটর সাইকেলের জন্য ১শ টাকা আর মালামালের জন্য নিচ্ছে ১শ থেক দেড়শ টাকা। এর প্রতিবাদ করলে বোট থেকে নামিয়ে দেওয়ার হুমকি ও লাঞ্চিত করা হয়। একই কথা বলেছেন বড়ঘোপ থেকে আসা অসংখ্য যাত্রীগণ।

তবে দরবার ঘাটের ইজারাদার পক্ষের লোক মোঃ মকুসদ চকরিয়া নিউজকে বলেন, েআমরা ডিসি সাহেব ও ইউএনও সাহেবকে অবগত করে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে মগনামা ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম চকরিয়া নিউজকে বলেন, আমি এ বিষয়টি মৌখিকভাবে জানতে পেরেছি। যাত্রীরা যাতে কষ্ঠ না পায় সেই বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও মাহাবুব-উল করিম বলেন, অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কোন সুযোগ নাই। অতিরিক্ত টাকা নিলে ইজারাদারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চকরিয়ায় শাহ আজমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা দখলের অভিযোগ, উত্তেজনা

It's only fair to share...000নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ::  কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পুর্ব সুরাজপুরস্থ ...

যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ, সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে বললেন ট্রাম্প

It's only fair to share...000জাগোনিউজ : পুলিশের নির্যাতনের পর এক কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ...