Home » কক্সবাজার » ঈদগাঁওর মাদ্রাসা সড়কটি ক্ষত বিক্ষত : দেখার কেউ নেই

ঈদগাঁওর মাদ্রাসা সড়কটি ক্ষত বিক্ষত : দেখার কেউ নেই

It's only fair to share...Share on Facebook486Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও ::  কক্সবাজার সদরের ব্যস্তবহুল বানিজ্যিক উপ শহর ঈদগাঁও বাজারের বিকল্প আলমাছিয়া ফাজিল মাদ্রাসা সড়কটি বর্তমানে মরন ফাঁদে পরিণত হয়ে পড়েছে। সংস্কারের কোন প্রকার উদ্যোগই দেখা যাচ্ছেনা। সংস্কারের দাবী সচেতন এলাকাবাসীসহ শিক্ষার্থীর। এমনকি জনগুরুত্ব পূর্ন সড়ক দিয়ে চলাচলে নিদারুন কষ্ট পাচ্ছে সাধারন লোকজন। যাতে করে,জন ও যানবাহন চলাচলে বিপাকে পড়ার পাশাপাশি জনদূর্ভোগ চরমে উঠেছে। যোগাযোগের আরেক বিকল্প সড়ক হিসেবে বর্তমানে ব্যবহৃত ঈদগাঁও আল মাছিয়া মাদ্রাসার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সড়কটিও মরন দশার কবলে পড়েছে। সড়ক জুড়েই ডজনাধিকেরও বেশি বড় বড় গর্তে সয়লাভ হয়ে উঠেছে। সামান্য বৃষ্টিতে যত্রতত্র স্থানে গর্তে পানি জমে চলাফেরা অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সে সাথে কদর্মাক্ত যেন চলাফেরায় কাল হয়ে পড়েছে। বেকায়দায় পড়েছে স্কুল- কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। এমনকি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের ছাত্রছাত্রীরা নানা দূর্ভোগ আর দূর্গতি পেরিয়ে দৈনিক তাদের শিক্ষাঙ্গনে আসা যাওয়া করতে চোখে পড়ে। বর্তমানে মাদ্রাসা সড়ক দিয়ে জন ও যান চলাচল অনেকটা বৃদ্বি পেয়েছে। উক্ত সড়কটিতে গর্ত সৃষ্টির কারনে চলাফেরার অযোগ্য বললেই চলে। এদিকে মাদ্রাসা গেইট সংলগ্ন দুপাশে গর্তের সৃষ্টি হলেই, সামান্য পরিমান বৃষ্টির পানি জমে জন ও যান চলাচল অনেকটা কষ্টকর হয়ে পড়ে। সন্ধ্যা কালীন সময়ে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে যেকোন মুহুর্তে ছোট পরিবহন উল্টে অপ্রীতি কর দূর্ঘটনার আশংকাও প্রকাশ করেন চালক রা। তবে ঈদগাঁও এলাকায় সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই অনুন্নত বলে জানান বহু পথচারী। সচেতন মহলের মতে,বর্তমানে ব্যস্তবহুল সড়ক হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে মাদ্রাসা সড়কটি। সড়ক জুড়েই প্রায় অংশে ঝুকিঁপূর্ন গর্ত। রক্ষা পেতে হলে সংস্কারের বিকল্প নেই। কবে হবে এ সড়কের সংস্কার কাজ,এমন প্রশ্নে ঘুরপাক খাচ্ছে পথচারীদের মাঝে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মরুভূমিতে আজো দাঁড়িয়ে আছে নবীজীকে (সা.) ছায়াদানকারী সেই গাছ

It's only fair to share...48600নিউজ ডেস্ক ::  অবিশ্বস্য হলেও সত্যে। আজ থেকে ১৫০০ বছর পূর্বে ...

error: Content is protected !!