Home » পার্বত্য জেলা » আলীকদমে ওসির উদ্যোগে বিশেষ প্রশিক্ষণে ট্রাফিক আইন শিখছে চালকরা

আলীকদমে ওসির উদ্যোগে বিশেষ প্রশিক্ষণে ট্রাফিক আইন শিখছে চালকরা

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

আলীকদম (বান্দরবান) প্রতিনিধি ::

সড়কে মোটরযান আইন মেনে চলার পাশাপাশি চালকদের ট্রাফিক আইনের আওতায় প্রশিক্ষিত করতে আলীকদম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিক উল্লাহ্’র বিশেষ উদ্যোগে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তিনি ব্যক্তি উদ্যোগে গত ১০ আগস্ট থেকে চালকদের ট্রাফিক আইনের ওপর প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। আলীকদম আইডিয়াল স্কুল হলরূমে প্রতি শুক্রবার বিকেলে এ প্রশিক্ষণে তিনি চালকদের ট্রাফিক আইন শিখাচ্ছেন। পর্যায়ক্রমে সব চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে এ প্রশিক্ষণ কাজে লাগবে।

জানা গেছে, বিগত কয়েক বছরে পাহাড়ি উপজেলা আলীকদমে মোটরযান চালকের সংখ্যা বেড়েছে। বিশেষ করে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এ উপজেলায় পর্যটক সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি বেড়েছে ভাড়ায় চালিত মোটর বাইক চালকের সংখ্যাও। স্থানীয় বাইক চালকরা পাহাড়ি পথে বিভিন্ন এলাকায় পর্যটকদের নিয়ে যাওয়া-আসা করছেন। তবে এসব চালকের অনেকের মোটরযান এবং ট্রাফিক আইন সংক্রান্ত কোন জ্ঞান নেই।

আলীকদম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিক উল্লাহ্ বলেন, আলীকদমে অধিকাংশ মোটরযান চালকের কোন লাইসেন্স নেই। সড়কে বৈধভাবে গাড়ি চালাতে হলে আইন অনুযায়ী লাইসেন্স প্রয়োজন। স্থানীয় চালকদের লাইসেন্স নিয়ে বৈধভাবে গাড়ি চালানোর জন্য আমি আহ্বান জানাই। এতে সাড়া দেন সবাই। চালকরা যাতে বৈধভাবে ড্রাইভিং লাইসেন্স সংগ্রহ করতে পারেন এবং গাড়ি চালানোর পাশাপাশি ট্রাফিক আইন সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে পারেন তা নিয়ে আমি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চালানোর উদ্যোগ নিয়েছি।

ওসি রফিক উল্লাহ্ বলেন, প্রতি শুক্রবার বিকেল চারটা থেকে আলীকদম আইডিয়াল স্কুল হলরূমে স্থানীয় চালকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত শতাধিক চালক আমার প্রশিক্ষণ ক্লাসে অংশগ্রহণ করছেন। আমি তাদেরকে ট্রাফিক আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় রপ্ত করানোর চেষ্টা করছি। তিনি স্থানীয় চালক যাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই, তাদেরকে প্রতি শুক্রবারের নির্ধারিত ক্লাসে যোগদানের অনুরোধ জানান তিনি। দেশমাতৃকার কল্যাণ চাইলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনের কর্মকর্তা ও শিক্ষকরাও এ প্রশিক্ষণ ক্লাসে অংশগ্রহণ করে প্রশিক্ষণার্থীদের ট্রাফিক আইনে প্রশিক্ষতি করতে ভূমিকা রাখতে পারেন।

উল্লেখ্য, অভ্যন্তরীন পরিবহনের কাজে নিয়োজিত মাহিন্দ্রা, সিএনজি, টমটম, অটোরিকশা এবং মোটর বাইকগুলো নিয়ম না মানার কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে। চালকদের এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচী দুর্ঘটনারোধে ভূমিকা রাখতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কক্সবাজার শহরে ২০ স্পটে যানজট বিরোধী অভিযান

It's only fair to share...000ইমাম খাইর, কক্সবাজার : কক্সবাজার শহরকে যানজট মুক্ত করতে অন্তত ২০টি স্পটে ...