Home » পার্বত্য জেলা » ছোট্ট এক গ্রামে ২৩ ইটভাটা!

ছোট্ট এক গ্রামে ২৩ ইটভাটা!

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

বান্দরবান প্রতিনিধি ::

বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের পাগলীর ছড়ায় ২৩টি ইটভাটা স্থাপন করে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা আশপাশের এলাকার পাহাড় কেটে মাটি নিতে থাকায় এলাকাটি অনেকটা সমতল ভূমিতে পরিণত হয়েছে। এ ছাড়া ইটভাটায় কয়লার বদলে জ্বালানি হিসেবে বনজ কাঠ ব্যবহার করায় গভীর অরণ্যের এই এলাকা ফাঁকা হয়ে পড়ছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে যৌথ অভিযান চালিয়ে পাহাড় কাটার তিনটি যন্ত্র ও এক ব্যারেল জ্বালানি তেল জব্দ করা হয়েছে।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে জান্নাত রুমী এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন। সেনাবাহিনীর আলীকদম জোন, লামা থানার পুলিশ ও পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এই অভিযানে অংশ নেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে জান্নাত রুমী জানান, অভিযান টের পেয়ে পাহাড় কাটা বন্ধ রেখে ইটভাটার লোকজন পালিয়ে যায়। এ অবস্থায় মাটি কাটার কাজে নিয়োজিত দুটি এস্কাভেটর ও একটি বুলডোজার জব্দ করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে মাটি কাটার যন্ত্রগুলো চালানোর জন্য রাখা এক ড্রাম জ্বালানি তেলও ধ্বংস করা হয়।

নূরে জান্নাত রুমী আরো জানান, গোপন সূত্রে পাহাড় থেকে মাটি কাটার খবর পেয়ে উচ্চপর্যায়ের এই অভিযানের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

এদিকে গভীর রাতে এত বড় অভিযান পরিচালনা করা হলেও গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পাহাড় থেকে মাটি কাটার অভিযোগে থানায় কোনো মামলা হয়নি। এতে জনমনে সন্দেহ দেখা দিয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, এসব ইটভাটার অনুমোদন না থাকলেও ভাটার মালিকরা প্রভাবশালী হওয়ায় প্রশাসন বা পরিবেশ অধিদপ্তর গ্রামীণ আবাসিক এলাকায় অবৈধভাবে স্থাপিত ইটভাটা বন্ধ বা উচ্ছেদ করার বিষয়ে কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেয়নি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চবিতে সাংবাদিকতা বিভাগে ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া ল্যাব ও স্টুডিও উদ্বোধন

It's only fair to share...23500 চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি :: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ...