Home » কক্সবাজার » মহেশখালী চ্যানেলে জলদস্যুতা বৃদ্ধি,আতংকে জেলেরা

মহেশখালী চ্যানেলে জলদস্যুতা বৃদ্ধি,আতংকে জেলেরা

It's only fair to share...Share on Facebook235Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এম রমজান আলী, মহেশখালী ::   বঙ্গোপসাগর ঘেষেঁ মহেশখালীর সোনাদিয়া চ্যানেলে জলদস্যুতা বৃদ্ধি হওয়ায় জেলে পরিবারে আতংক বিরাজ। জেলেরা জানান, বঙ্গোপসাগরে মহেশখালী সোনাদিয়া চ্যানেলের ও বিভিন্ন এলাকা থেকে জড়ো হওয়া জলদস্যুদের উপদ্রব বৃদ্ধি হওয়ায় সাগরের জেলেরা চরম ভাবে আতংকে রয়েছে যে কোন মুহুর্তে ঘটে যেতে পারে অপ্রতিকর ঘটনা।

২৮ জুলাই দুপুর ২টার দিকে বঙ্গোপসাগরে ১৬ বিউ নামক স্থানে ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের রেজাউল করিম মেম্বারের মালিকানাধিন এফ,বি আল মদিনা নামক ফিশিং ট্রলারে জলদস্যুরা হামলা চালিয়ে ৫জনকে গুলিবিদ্ধও প্রায় ২০জনকে পিঠিয়ে আহত করেছে। আহত করার পর ফিশারম্যানদের জিম্মি করে ফিশিং ট্রলারের সব সরঞ্জমাদি লুট এবং ২লক্ষ টাকা মুক্তিপণ আদায় করেছে সহ বঙ্গোপসাগরে নিয়মিত ভাবে ঘটেই যাচ্ছে নানান ঘটনা। জেলেরা আরো জানান, নিয়মিত মাসোহারা দিতে অপারগ হলে পরবর্তিতে এই ট্রলার সাগরে আর মাছ ধরার জন্য যেতে পারেনা, তাদের অবাধ্য হওয়া কোন ফিশিং ট্রলার সাগরে মাছ শিকারে গেলে ট্রলারের ইঞ্জিন, জাল, আহরনকৃত মাছ, তৈল ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি লুট করে নিয়ে যায় পরিশেষে খালি ট্রলারটি ফুটো করে সাগরে ডুবিয়ে দেয়।

মহেশখালী উপজেলা ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, সাগরে জলদস্যুতা বৃদ্ধি পাওয়ায় আমাদের জেলে পরিবার গুলো চরম ভাবে আতংকে দিনাতিপাত করছে তাই জলদস্যুতা বন্ধে কোস্টগার্ড সহ প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতা কামনা করছি কেননা মহেশখালীর বেশীর ভাগ লোকজন ফিশিং এর উপর নির্ভর করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা ইস্যুতে মুখ খুললেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান

It's only fair to share...23500অনলাইন ডেস্ক :: মিয়ানমারের সার্বভৌমত্বে হস্তক্ষেপ করার অধিকার জাতিসংঘের নেই বলে ...