Home » কক্সবাজার » ঈদগাঁওর সড়ক-উপসড়কে ঝুকিঁপূর্ণ স্পট : দূর্ঘটনার আশংকা

ঈদগাঁওর সড়ক-উপসড়কে ঝুকিঁপূর্ণ স্পট : দূর্ঘটনার আশংকা

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও ::

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওর নানা সড়ক উপসড়কের ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে উভয়মুখী যাত্রীদের মরণ ফাঁদে পরিণত হয়ে পড়েছে। কোথাও ডানেমোড়, আঁকা বাঁকা রাস্তা বা সতর্কীকরণ চিহ্ন না থাকায় প্রায়শ এসব এলাকায় দুরপাল্লার দ্রুতগামী যানবাহন ও মালবাহী গাড়ী কোন না কোন ভাবেই দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। প্রাপ্ত তথ্য মতে, পূথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্রনগরী কক্সবাজারসহ হরেক রকমের বিনোদনের ষ্পট দেখতে  পর্যটকেরা কক্সবাজারমুখী হচ্ছে বেশিভাগই। সে হিসেবে দেশের বিভিন্ন জেলার প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চল থেকে নানা যানবাহন নিয়ে পর্যটনশহরের দিকে ছুটে আসছে নানা পেশার পর্যটকরা। ঢাকা – চট্রগ্রাম হয়ে কক্সবাজারে আসার সময় মহা সড়কে ছোট বড় ঝুকিঁপূর্ণ ষ্পট রয়েছে। তৎমধ্য পানিরছড়া, ঈদগাঁও বাসষ্টেশন,ফকিরা বাজার,নাপিতখালী, মেধাকচ্ছপিয়াসহ বেশ কয়েকটি স্থানে। দুর থেকে এসব স্থানে টেক-বাঁকগুলো দেখা না যাওয়ার কারণে এ সকল স্থানজুড়েই  যানবাহনের দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করছেন সচেতন লোকজনসহ সংশ্লিষ্ট যানবাহনের চালকরা। অন্যদিকে সড়কের উপর একাধিক টির মত হাটবাজার থাকায় এটি উভয় মুখী গাড়ি চলাচলের ক্ষেত্রে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে,কালিরছড়া,ঈদগাঁও, ফকিরা বাজার,নাপিতখালী বটতল,নতুন অফিস ও খুটাখালীসহ আরো অনেক। এসব ষ্টেশন ও বাজারে ছোট বড় যানবাহন দাঁড় করানোর কারণে দীর্ঘক্ষন পর্যন্ত যানজটের কবলে পড়তে হচ্ছে দুরদুরান্তের যাত্রীদেরকে। এতে করে, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে পর্যটকদেরকে অযথা সময় মহাসড়কের উপর নানা ক্ষেত্রে অপেক্ষা করতে হচ্ছে যথাস্থানে পৌঁছতে। দেখা যায়, চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের গুরুত্ব দিন দিন বৃদ্বি পাচ্ছে। পর্যটনশহর কক্স বাজারে নানা স্থরের মানুষের যাতায়াত বেড়েছে ব্যাপক পরিসরে। তবে কয়েক যানবাহন চালকরা জানান, সদরের ইসলাম পুরের নাপিতখালী মোড়ের বাঁকটি অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ণ। দ্রুতগতিতে যানবাহন চালিয়ে আসলে সহজে গতি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়না। অপর দিকে বেশ কজন পর্যটক জানান, মহাসড়কের ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে কোথাও সতর্কীকরণ চিহৃ না থাকায় দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করেন তারা। এ ব্যাপারে প্রাক্তন ব্রাক শিক্ষা কর্মকতা মীর মোহাম্মদ নোমান আজকের কক্সবাজারকে জানান, মহাসড়ক কিংবা গ্রামীন সড়কে টেকঁবাকের কারনে সাধারন মানুষজনের রাস্তা পারাপারে দারুন ভাবে ব্যাঘাত ঘটছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লামায় মোটর সাইকেল লাইনে ব্যাপক চাঁদাবজির অভিযোগ

It's only fair to share...000মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি ::   বান্দরবানের লামায় যাত্রীবাহী মোটর ...