Home » কক্সবাজার » কক্সবাজার বিতর্ক উৎসবে অংশ নিচ্ছে ৩২ স্কুল কলেজ

কক্সবাজার বিতর্ক উৎসবে অংশ নিচ্ছে ৩২ স্কুল কলেজ

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
কক্সবাজার বিতর্ক উৎসব-২০১৮ এ অংশ নিচ্ছে জেলার ৩২টি স্কুল ও কলেজ। ইতিমধ্যে বিতর্ক দলের নিবন্ধনও সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ৪ ও ৫ মে কক্সবাজার বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমী মাঠে অনুষ্টিত হবে দুই দিন ব্যাপী এই বিতর্ক উৎসব।যুক্তিতে মুক্তি-এ শ্লোগানে বিতর্ক উৎসবের আয়োজক প্রথম আলো বন্ধুসভা। সহযোগিতায় থাকছে ‘কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ’।

বিতর্কের জন্য নিবন্ধিত কলেজগুলো হচ্ছে, কক্সবাজার সরকারি কলেজ, কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজ, কক্সবাজার সিটি কলেজ, কক্সবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, কক্সবাজার হার্ভাড কলেজ, কক্সবাজার কমার্স কলেজ ও ঈদগাঁহ ফরিদ আহমদ কলেজ।

স্কুলগুলো হচ্ছে, রামু ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল, উখিয়া সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, কক্সবাজার বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমি, ঈদগাহ জাহানারা ইসলাম বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, উত্তরণ মডেল স্কুল, কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, টেকনাফ হ্নীলা আল ফালাহ একাডেমি, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, চকরিয়া সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, কক্সবাজার মডেল হাইস্কুল, উখিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, পেকুয়া শীলখালী উচ্চবিদ্যালয়, রামু গর্জনিয়া উচ্চবিদ্যালয়, চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ, মহেশখালী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন, চকরিয়া অনুশীলন একাডেমি, রামু কচ্ছপিয়া উচ্চবিদ্যালয়, মহেশখালী গোরকঘাটা উচ্চবিদ্যালয়, ঈদগাহ উচ্চবিদ্যালয়, চকরিয়া গ্রামার স্কুল, কক্সবাজার বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল, রামু বালিকা উচ্চবিদ্যালয় ও রামু খিজারী উচ্চবিদ্যালয়।

বিতর্ক উৎসব প্রস্তুতি কমিটির সভা কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক) কার্যালয়ে অনুষ্টিত হয়। কউক চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত এসভায় উপস্থিত ছিলেন, কউক সদস্য ( প্রকৌশল) লে. কর্ণেল আনোয়ার-উল-ইসলাম, সচিব শেখ সাদেক, নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী ফজলুল করিম, প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল প্রমুখ।

সভায় বিতর্ক উৎসব পরিচালনার জন্য বিচারক প্যানেল এবং বিতর্কের বিষয়গুলো নির্ধারণ করা হয়। স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে ( দুটি বিভাগে) বিতর্ক চলবে। তিন জনের প্রতিটি বিতর্ক দলের সঙ্গে থাকবেন একজন করে শিক্ষক। বিতর্ক উৎসবে অংশগ্রহনকারী সকল শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট, টি-শার্ট এবং বিজয়ীদের সনদ ও ক্রেস্ট প্রদান করা হবে।

# স্কুল পর্যায়ে বিতর্কের বিষয়গুলো হচ্ছে / প্রথম রাউন্ড : আদর্শ মানুষ তৈরিতে স্কুল নয় পরিবারের ভুমিকাই প্রধান। দ্বিতীয় রাউন্ড : সুশীল সমাজের সক্রিয় ভূমিকাই পারে পযটন শহরকে রক্ষা করতে। কোয়ার্টার ফাইনাল : মাদকদ্রব্যের অবাধ ব্যবহারই সামাজিক অবক্ষয়ের মূলকারণ। সেমিফাইনাল : অতিরিক্ত যানবাহনই কক্সবাজার শহরের যানজটের প্রধান কারণ। ফাইনাল : রোহিঙ্গা সংকটই কক্সবাজারের জন্য বড় হুমকি।

# কলেজ পর্যায় / প্রথম রাউন্ড : পযটনশিল্পের প্রধান অন্তরায় অপরিকল্পিত নগরায়ন। সেমিফাইনাল : মুল্যবোধের অবক্ষয়ের প্রধান কারণ ফেসবুক। ফাইনাল : অপরিকল্পিত নগরায়নের কারণেই কক্সবাজার ইটপাথরের ঘিঞ্জি শহর।

কউক চেয়ারম্যান ফোরকান আহমেদ বলেন, পর্যটন রাজধানী খ্যাত কক্সবাজারকে অ্ত্যাধুনিক ও পরিকল্পিত শহর হিসাবে গড়ে তোলার কাজ চলছে। কক্সবাজারকে ঢেলে সাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নানা উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। ইতিমধ্যে তিনি কক্সবাজারের উন্নয়নে ২৫টির বেশি মেগাউন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন।উন্নয়নের পাশাপাশি পরিকল্পিত নগরায়নের বিষয়ে কক্সবাজারের লোকজনকে সচেতন করতে নানা কর্মসূচি চলছে। বিতর্ক উৎসব তার একটি ।

বিতর্ক উৎসব বিষয়ে তথ্যের জন্য যোগাযোগ : ০১৭১৪-৩৭৪৬৩৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন অনলাইনে

It's only fair to share...27300 জাতীয় সংসদ, ফাইল ফটো আইটি ডেস্ক :: একাদশ জাতীয় সংসদ ...