Home » কক্সবাজার » কেপিএলের দশম আসরে সোনালী সুপার সিক্সার্স চ্যাম্পিয়ন

কেপিএলের দশম আসরে সোনালী সুপার সিক্সার্স চ্যাম্পিয়ন

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :  কক্সবাজারের সবচেয়ে আলোচিত ক্রিকেট টূর্ণামেন্ট পেকুয়া উপজেলার শিলখালী ইউনিয়নের কেপিএলের (কাছারীমোরা প্রিমিয়ার লিগ) দশম আসরের শিরোপা জিতল উজানটিয়ার সোনালী সুপার সিক্সার্স। গতকাল শুক্রবার অনুষ্ঠিত টূর্ণামেন্টের চুড়ান্ত খেলায় শিলখালীর ড্রাগন্স ক্রিকেটকে পাঁচ রানে হারিয়ে সোনালী সুপার সিক্সার্স তাঁদের শিরোপা নিশ্চিত করে।

বিকেল তিনটায় কাছারীমোড়ার কেপিএল মাঠে জাতীং সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে খেলা শুরু হয়। টসে জিতে ব্যাটিং করে সোনালী সুপার সিক্সার্স। নির্ধারিত ১২ ওভারে ১০৯ রান সংগ্রহ করে তাঁরা। ১১০ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে মাঠে নামে ড্রাগন্স ক্রিকেট। নির্ধারিত ১২ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ১০৪ রান সংগ্রহ করে। এতে ড্রাগন্স ক্রিকেট পাঁচ রানে হেরে গেলে শিরোপা নিশ্চিত হয় সোনালী সুপার সিক্সার্সের।

শিরোপা নির্ধারণী খেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু। বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, পেকুয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. নুরুজ্জামান মঞ্জু, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য উম্মে কুলসুম মিনু, শিলখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হোছাইন, উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, কেপিএলের প্রধান উপদেষ্ঠা সাংবাদিক এস এম হানিফ, শিলখালী ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু ছিদ্দিক রনি, সমাজসেবক ও চকরিয়ার দোহা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী হাসানুল ইসলাম আদর, কেপিএলের সভাপতি সাহেদুল ইসলাম শাহেদ, সম্পাদক তানজিমুল ইসলাম জিসাদ, উপদেষ্টা মাষ্টার এহেছানুল হক, শেখ ফরিদুল ইসলাম, আলম নূর ও ইলিয়াছ আজাদ প্রমুখ।

ধারা ভাষ্যকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সাংবাদিক এফ এম সুমন ও বেলাল উদ্দিন বিল্লাল। আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সুজিত দাশ ও নুর মোহাম্মদ মামুন।

ম্যান অব দ্যা ফাইনাল নির্বাচিত হন তৌহিদুল ইসলাম বদি। ম্যান অব দ্যা সিরিজ নির্বাচিত হন ড্রাগন্স ক্রিকেটের অধিনায়ক মোরশেদুল আলম। তাঁকে একটি বাইসাইকেল হস্তান্তর করেন অতিথিরা।

কেপিএলের মহাসচিব তানজিমুল ইসলাম জিসাদ বলেন, ২৯ ডিসেম্বর শুরু হওয়া কেপিএলের মোট ১৬ টি খেলা উপভোগ করেছে দর্শকরা। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কক্সবাজার উপকূলের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসরটির সমাপ্তি ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বিএনপির অনেক নেতাই এখন জাতীয় পার্টিতে যোগ দেবেন : এরশাদ

It's only fair to share...000ডেস্ক নিউজ : সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বিএনপির অনেক ...