Home » কক্সবাজার » সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা দেয় এলাইট হসপিটাল

সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা দেয় এলাইট হসপিটাল

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সাতকানিয়া প্রতিনিধি ::

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সাতকানিয়া-লোহাগাড়া অংশ দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকা। সড়কে প্রায়ই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। এতে অকালে ঝরে যাচ্ছে অনেক তাজা প্রাণ। আবার কেউ কেউ স্থায়ীভাবে পঙ্গুত্ব বরণ করছেন। আহতদের অনেকে যথাসময়ে সঠিক চিকিৎসা না পাওয়ায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। দ্রুত সময়ে প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে পারলে বাঁচানো যায় অনেক জীবন।

এই উপলব্ধি থেকে সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের জন্য বিনা মূল্যে চিকিৎসা সেবা চালু করেছে সাতকানিয়ার কেরানীহাট এলাইট হসপিটাল (প্রা.) লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। গত দুই বছর ধরে হাসপাতালটি সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা দিচ্ছে। ওই এলাকায় দুর্ঘটনায় আহতদের যেকোনোভাবে এলাইট হসপিটালে পৌঁছানো গেলেই মেলে চিকিৎসাসেবা। স্বজন বা প্রয়োজনীয় খরচের জন্য থেমে থাকবে না দুর্ঘটনায় আহত কারো চিকিৎসা।

এ প্রসঙ্গে এলাইট হসপিটাল (প্রা.) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. নাসির উদ্দিন জানান, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক এবং কেরানীহাট-বান্দরবান সড়কে প্রায়ই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে অনেক লোক অকালে মারা যান। দুর্ঘটনায় যাঁরা আহত হন তাঁদের অনেকে সঠিক সময়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার অভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। দুর্ঘটনার সময় আত্মীয়-স্বজনও সঙ্গে থাকেন না। অনেক সময় আহতদের সঙ্গে টাকা-পয়সাও থাকে না। ফলে বাঁচার সম্ভাবনা থাকার পরও শুধু দ্রুত সময়ের মধ্যে চিকিৎসার অভাবে অনেকে মারা যান।

তিনি বলেন, ‘দুই বছর আগে বিষয়টি মাথায় আসার পর হসপিটালের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ ব্যাপারে আলোচনা করা হয়। এতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদেরকে বিনা মূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার ব্যাপারে সবাই একমত পোষণ করেন। এরপর থেকে দুর্ঘটনায় আহতদেরকে আমরা বিনা মূল্যে চিকিৎসা দিয়ে থাকি। ইতোমধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত অনেক রোগীকে আমরা বিনা মূল্যে চিকিৎসা দিয়েছি।’

সাতকানিয়া পৌরসভার গোয়াজারপাড়া এলাকার মো. এমরান বলেন, ‘এক বছর আগে আমি বান্দরবান সড়কের বায়তুল ইজ্জত এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়ে সড়কের উপর পড়েছিলাম। এ সময় আমার প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। পরে কয়েকজন লোক আমাকে উদ্ধার করে কেরানীহাট এলাইট হসপিটালে নিয়ে যান। সেখানে নেওয়ার পর তাঁরা আমাকে বিনা মূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সযোগে শহরের হাসপাতালে পাঠান। দুর্ঘটনায় আহতদেরকে বিনা মূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়াটা সত্যিই প্রশংসনীয়।’

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. রফিকুল হোসেন বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনা হল তাৎক্ষণিক সৃষ্ট বিপদ। এ সময় স্বজনদের কেউ সঙ্গে থাকে না। অনেক সময় চিকিৎসা করার মতো পর্যাপ্ত টাকা পয়সাও থাকেন না। সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের বিনা মূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা করাটা সর্বোচ্চ মানবতা। এটি একটি অতুলনীয় দৃষ্টান্ত। যাঁরা এ সেবা চালু করেছেন তাঁদেরকে স্যালুট জানাই। অন্য হসপিটাল কর্তৃপক্ষকে এ সেবা অনুসরণের জন্য আহবান জানাব।’

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তা ডা. মো. ওয়াজেদ চৌধুরী অভি বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদেরকে বিনা মূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য এলাইট হসপিটাল কর্তৃপক্ষকে সাধুবাদ জানাই। তাঁদের এ সেবা দুর্ঘটনায় আহত অনেক মানুষকে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মালয়েশিয়ায় ১০ বছরের বেশি ভিসা নয়, শঙ্কায় লক্ষাধিক বাংলাদেশি

It's only fair to share...20700মালয়েশিয়া প্রতিনিধি : মালয়েশিয়ায় কোনো প্রবাসী ১০ বছরের বেশি ভিসা পাবেন ...