Home » পার্বত্য জেলা » লামায় পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে বিদ্যালয়ের জায়গায় অবৈধ ঘর নির্মাণ

লামায় পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে বিদ্যালয়ের জায়গায় অবৈধ ঘর নির্মাণ

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

%e0%a7%87%e0%a7%8b%e0%a6%be%e0%a6%be%e0%a6%be%e0%a6%be%e0%a6%be%e0%a6%be%e0%a6%beমোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা প্রতিনিধি ঃ

লামা পৌরসভার চেয়ারম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গায় পুলিশের ও পৌরসভার বাধা উপেক্ষা করে জোর পূর্বক অবৈধভাবে ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ৪জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত পারভীন আক্তারকে লামা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার ২টায় ঘটনার সূত্রপাত হয়।

চেয়ারম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ ইউছুপ আলী ও সহ-সভাপতি মোঃ নিজাম উদ্দিন কর্তৃক লামা থানায় প্রদত্ত অভিযোগ মূলে জানা গেছে, ১৯৮১ সালে চেয়ারম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয়। বিদ্যালয়ের দানপত্র মূলে ২৯ শতক জায়গার মালিক। পার্শ্ববর্তী মৃত শাহজাহান চৌধুরীর ছেলে সবুজ, শ্যামল ও মনিরুল ইসলাম রাসেল বিদ্যালয়ের ১৪শতক জায়গা জবরদখল করেছে। তারা বিদ্যালয়টিকে উচ্ছেদের পায়তারা করছে। চেয়ারম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংস্কারের জন্য দরপত্র আহবানের খবর শুনে বিদ্যালয়ের আরো জায়গা জবরদখলের জন্য জোর পূর্বক অবৈধভাবে ঘর নির্মাণ করেছে। স্কুল কমিটির পক্ষ থেকে থানা এবং পৌরসভায় অভিযোগ দেয়ার পরে ঘর নির্মাণে স্থগিত আদেশ দিলে অভিযুক্তগণ তা কর্ণপাত করেনি। লামা থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক মাহাবুব ও তানবীর সোমবার দুপুর ২টায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অবৈধ ঘর নির্মাণে বাধা প্রদান করলেও তারা পুলিশের বাধা উপেক্ষা করেছে। বিকালে স্কুল কমিটি ও স্থানীয় লোকজন অবৈধঘর নির্মাণে বাধা প্রদান করলে সবুজ, শ্যামল ও মনিরুল ইসলাম রাসেল লোকজনের উপর হামলা চালায়। এতে স্থানীয় নিজাম উদ্দিন, পারভীন আক্তার, নুর আলম সহ চারজন আহত হয়। ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রায় ৩০ জন পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এদিকে সবুজ তার স্ত্রী আহত হয়েছে বলে দাবী করেছে।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন, পুলিশে বাধা দেয়া সত্ত্বেও ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

x

Check Also

court-bazar-_1

উখিয়ায় যত্রতত্র গাড়ী পার্কিং : বাড়ছে যানযট

It's only fair to share...000 উখিয়া প্রতিনিধি ::: উখিয়ার জনবহুল স্টেশন উখিয়া সদর, কোটবাজার, মরিচ্যা ...