ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

চকরিয়ায় মোটর সাইকেল থামিয়ে যুবককে গুলি করে কুপিয়ে হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে হত্যা: দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার উপকূলীয় অঞ্চলের বদরখালী ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তার,  চাাঁদাবাজি, ছিনতাই ও বিভিন্ন অপকর্ম করে হাতিয়ে নেওয়া টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দুটি গ্রুপের মধ্যে দ্ব›েদ্বর জের ধরে মোহাম্মদ রিয়াদ (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে পা বিচ্ছিন্ন হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।
এসময় গুলি করে ও কুপিয়ে মো. ছোটন (৩২) ও মো. জিদান (২০) আরও দুইজন গুরুতর আহত করা হয়েছে। শুক্রবার (৫ এপ্রিল) রাত আনুমানিক এগারটার দিকে উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের টুটিয়াখালী এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।
আহতের মধ্যে জিহাদের পায়ে গুলি ও ছোটনের বাম হাতের কব্জি কেটে আলাদা করে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা।
স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে  আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করে।  আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রিয়াদকে চমেক হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত দেড়টার দিকে তাঁর মৃত্যু ঘটে।
নিহত মোহাম্মদ রিয়াদ বদরখালী ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড মগনামাপাড়া গ্রামের ফরিদুল ইসলামের ছেলে। আহত ছোটন ওই ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ড টুটিয়াখালী গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে ও অপর আহত জিদান মাতারবাড়ি পাড়ার বারেক আহমদের ছেলে।
গতকাল সকালে সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, বদরখালী ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের নজরুল ইসলাম নামে এক যুবক এলাকায় একটি বাহিনী তৈরী করে ছিনতাই, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছে।
এ নিয়ে গত এক মাস আগে তাদের মধ্যে ভাগাভাগি ও মতের পার্থক্য দেখা দিলে তারা বিভক্ত হয়ে পড়ে। পরে তাদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চরম পর্যায়ে পৌঁছে যায়।
সর্বশেষ শুক্রবার রাত সাড়ে দশটা থেকে এগারোটার দিকে রিয়াদ, ছোটন ও জিদান বদরখালী বাজার থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। এসময় টুটিয়াখালী এলাকায় পৌছলে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা নজরুলের নেতৃত্বে ১০-১১জন সন্ত্রাসী মোটরসাইকেল আরোহীদের গতিরোধ করে জিদানের পায়ে  গুলি করে।
এক পর্যায়ে তিন মোটরসাইকেল আরোহী রাস্তায় পড়ে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলাপাড়াড়ি কুপিয়ে রিয়াদের ডান পায়ের গোড়ালী এবং ছোটনের বামহাতের কব্জি কেটে আলাদা করে। এছাড়া দুইজনের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে সন্ত্রাসীরা। এদের মধ্যে আহত রিয়াদকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, কুপিয়ে হত্যা ও আহতের ঘটনায় সম্পৃক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

পাঠকের মতামত: