ঢাকা,সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১

ভারতে পালানোর সময় মিতু হত্যা মামলার আসামি ভোলা গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম :: সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার আসামি এহতেশামুল হক ভোলাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। তাকে বেনাপোল থেকে গ্রেপ্তারের পর শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামে আনা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মিতু হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সন্তোষ কুমার চাকমা।

এর আগে, ১৪ অক্টোবর চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতে মিতু হত্যা মামলার আসামি এহতেশামুল হক ভোলা জামিন আবেদন শুনানিতে অংশ না নিয়ে সময়ের আবেদন করেছিলেন। ওইদিন শুনানির পর আদালত সময়ের আবেদন নামঞ্জুর করে ভোলার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। পরোয়ানা জারির পর থেকেই আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তা কাজ শুরু করে। চট্টগ্রাম ছেড়ে বেনাপোল যাওয়ার পর ভোলা গ্রেপ্তার হন। মূলত ভারতে পালানোর জন্যই বেনাপোল গিয়েছিল বলে তথ্য পেয়েছে পিবিআই।

এহতেশামুল হক ভোলার সময়ের আবেদন করার আগে উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন পেয়েছিলেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী তিনি মহানগর দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন এবং ১৪ অক্টোবর শুনানির দিন ধার্য করেছিলেন। ধার্যকৃত তারিখে ভোলা আদালতে হাজির না হয়ে সময়ের আবেদন করেন। এ সময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জোরালে বিরোধিতা করার পর আদালত সময়ের আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য পরোয়ানা জারি করেন।

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে জিইসির মোড় এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাত ও গুলিতে মারা যান মিতু। ওই ঘটনায় তৎকালীন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার বাদী হয়ে পাঁচলাইশ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। প্রায় পাঁচ বছর তদন্তের পর সেই মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পিবিআই। একই দিন (১২ মে) নতুন করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলায় বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করা হয়। নতুন এই মামলা করেন মিতু বাবা মোশাররফ হোসেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে বাবুল আক্তার এখন ফেনী কারাগারে বন্দি রয়েছেন।

পাঠকের মতামত:

 
error: Content is protected !!